Melbondhon
এখানে আপনার নাম এবং ইমেলএড্রেস দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করুন অথবা নাম এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করুন
widgeo

http://melbondhon.yours.tv
CLOCK
Time in Kolkata:

হোমিওপ্যাথি প্রাকৃতিক নীতি ভিত্তিক একমাত্র চিকিৎসা পদ্ধতি।

Go down

হোমিওপ্যাথি প্রাকৃতিক নীতি ভিত্তিক একমাত্র চিকিৎসা পদ্ধতি।

Post by মাষ্টার জয়দেব পাল আসাম on 2011-06-27, 19:42

প্রকৃতিকে নির্ভূলভাবে অনুসরণ করা অর্থাৎ প্রকৃতির ক্রিয়াধারার পর্যবেক্ষণ, সতর্ক পরীক্ষা নিরীক্ষা ও বিশুদ্ধ অভিজ্ঞতা যাকে হোমিওপ্যাথি রীতি বলা হয়। প্রাকৃতিক নিয়মের উপর ভিত্তি করেই হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা শাস্ত্র রচিত। প্রাকৃতিক নিয়ম বলতে আমরা বুঝি সেই সব চিরন্তন বিধান যেগুলি দ্বারা কোন প্রাকৃতিক ঘটনার সামগ্রিক গতিধারা প্রকাশ করা হয়। মানুষের দেহে রোগের সংক্রমণ ও বিকাশের সময় তার স্বাস্থ্যের স্বাভাবিক অবস্থার পরিবর্তন হয়। কতকগুলি চিহ্ন ও লক্ষণ এই রোগাবস্থার এক সামগ্রিক চিত্র আমাদের নিকট তুলে ধরে। ঔষধ প্রয়োগে এই অবস্থার পরিবর্তন হয়, রোগী আরোগ্য লাভ হয়। রোগলক্ষণসমূহ অন্তর্হিত হয়। এখানে দেখা যায় রোগ ও ঔষধের মধ্যে নিশ্চয়ই এমন কোন শাশ্বত সম্পর্ক রয়েছে যার উপর আরোগ্য ক্রিয়া নির্ভরশীল। সেই সম্পর্কটি কি? ঔষধ কেন রোগ আরোগ্য করে? অভিজ্ঞতায় দেখা গিয়েছে যে, ঔষধ সস্থ দেহে রোগ সৃষ্টি করতে পারে, ঠিক যেমন প্রাকৃতিক রোগ শক্তি সুস্থদেহে রোগের সংক্রমণ ঘটায়। সুস্থদেহে ঔষধ প্রয়োগ করলে মানবের সমস্ত প্রাণ সত্তার অবস্থার গুণগত পরিবর্তন ঘটায় যার প্রতিফলন হয় উৎপন্ন লক্ষণসমূহের এক সামগ্রিক রূপে। রোগাবস্থায় প্রদত্ত ঔষধ এই লক্ষণসমষ্টি দূর করে রোগীকে সুস্থাবস্থায় ফিরিয়ে আনে। কাজেই সুস্থদেহে ঔষধ প্রয়োগ জনিত লক্ষণ সমষ্টির জ্ঞান আমাদের রুগ্নাবস্থায় ঔষধের প্রয়োগ ক্ষেত্রকে সুনির্দিষ্ট করে দেয়। রোগ ও ঔষধ সদৃশ। প্রশ্ন জাগে, সদৃশ নীতিতে ঔষধ প্রয়োগ করলে রোগী আরোগ্য হয় কেন? হোমিওপ্যাথির আরোগ্য নীতি নিউটনের গতি বিষয়ক তৃতীয় নীতির উপর প্রতিষ্ঠিত। এই নীতিটি হল প্রতিটি ক্রিয়ার একটি সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়া আছে। কাজেই যে ঔষধের যে রোগ উৎপাদন করার ক্ষমতা আছে সেই একই ঔষধের সেই রোগ দূর করার ক্ষমতাও আছে। সদৃশ মতে ঔষধ প্রয়োগের ফলে ঔষধের প্রাথমিক ক্রিয়া হল রোগীতে যে লক্ষণসমূহ বর্তমান তদ্রুপ লক্ষণ উৎপাদন করা। লক্ষণসমূহের সাদৃশ্য হেতু সেই সব লক্ষণসমূহ প্রাকৃতিক রোগ দ্বারা অধিকৃত স্থানসমূহেই প্রকাশিত হয় এবং তেমনি ভাবে ধীরে ধীরে বিস্তার লাভ করে। দুই সমভাবাপন্ন শক্তি তখন একই সময়ে একই ভূমিতে ক্রিয়াশীল থাকে। এরপর শুরু হয় ঔষধের গৌণ ক্রিয়া যা প্রাথমিক ক্রিয়ার সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়া। ঔষধের শক্তি প্রাকৃতিক রোগ শক্তি অপেক্ষা প্রবলতর কিন্তু ক্ষুদ্রমাত্রায় প্রদত্ত হয় বলে স্বল্পকাল স্থায়ী। অতএব, ঔষধের প্রবলতর শক্তিতে রোগের দুর্বলতর শক্তি বিলীন হয়ে যায়। ফলে রোগ শক্তির কোন অস্তিত্ব থাকে না। ঔষধের ক্রিয়াকাল শেষ হলে তার সৃষ্ট লক্ষণসমূহও তিরোহিত হয়। ইহাই সদৃশ বিধান বা হোমিওপ্যাথি। তাই বলা যায় হোমিওপ্যাথি প্রাকৃতিক নীতি ভিত্তিক একমাত্র চিকিৎসা পদ্ধতি।
avatar
মাষ্টার জয়দেব পাল আসাম
আমি আন্তরিক
আমি আন্তরিক

লিঙ্গ : Male
পোষ্ট : 22
রেপুটেশন : 2
শুভ জন্মদিন : 12/02/1985
নিবন্ধন তারিখ : 04/04/2011
বয়স : 33
অবস্থান : অসম
পেশা : স্কুল মাষ্টার
মনোভাব : ভালো

https://www.facebook.com

Back to top Go down

Re: হোমিওপ্যাথি প্রাকৃতিক নীতি ভিত্তিক একমাত্র চিকিৎসা পদ্ধতি।

Post by shamimbd on 2011-06-27, 22:44

সুন্দর টপিক।
avatar
shamimbd
আমি নতুন
আমি নতুন

লিঙ্গ : Male
পোষ্ট : 13
রেপুটেশন : 3
শুভ জন্মদিন : 30/10/1980
নিবন্ধন তারিখ : 19/04/2011
বয়স : 37
অবস্থান : Rajshahi
পেশা : Doctor

http://rmcforum.com

Back to top Go down

Back to top


 
Permissions in this forum:
You cannot reply to topics in this forum